360 x 130 ad code [Sitewide - Site Header]

শিক্ষার্থীদের গলা কাটার নতুন অস্ত্র আইআইসিটি ক্যাফে

Share via email

দেলোয়ার হোসেন:

একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেতে শুধু ডাল দিয়ে ভাত খেলে বিল কত হতে পারে?

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউশন অফ ইনফরমেশন টেকনোলোজি ভবনে মাস খানেক পূর্বে চালু হয়েছে নতুন ক্যাফে। সেখানে শুধু মুগডাল দিয়ে ভাত খেলে গুণে গুণে ৪০(২০+২০) টাকা দিয়ে আগে টোকেন সংগ্রহ করে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে নিজ দায়িত্বে কাউন্টার থেকে বুঝে নিতে হবে। যেখানে ভার্সিটি গেইটেও ভাত ডাল মুরগি খেলে ৩৫ টাকার মধ্যে খাওয়া শেষ হয় সেখানে এই ক্যাফেতে মুরগির দামই ৪০ টাকা প্রদান করতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। সাথে  ভাতের দাম (২০ টাকা) তো আছেই। মান নিয়ে অনেকটা সন্তুষ্ট হলেও পরিমাণ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন শিক্ষার্থীরা।

সকাল ১০ থেকে সন্ধ্যা অবধি এই ক্যাফের কার্যক্রম চালু থাকলেও সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে রয়েছে অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা।  বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়া থাকলেও সেটির অভ্যন্তরীণ সংস্কারের জন্য দীর্ঘদিন বন্ধ রেখেছে ক্যাফেটেরিয়া কর্তৃপক্ষ। মূলত ক্যাফেটেরিয়ার খাবারের দাম ও মান নিয়ে সাস্টনিউজে “৩২০ একর এবং অদ্ভুত আখনিখোরদের কষ্ট“, “শাবিপ্রবি ক্যাফেটেরিয়ার খাবারের মান নিয়ে অসন্তোষ“, “ক্যাফেটেরিয়ায় চড়া মূল্যে নিম্নমানের খাবার” সহ একাধিক লেখা প্রকাশিত হবার পর উপাচার্যের নির্দেশে এ সংস্কার কার্যক্রম শুরু হয়।

দুপুরের খাবারের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা যেতে হয় খাবার টঙে। যেখানে অস্বাস্থ্যকর খাবার বিক্রির অভিযোগ উঠেছে অনেক আগেই। তবুও কোন ব্যবস্থা নেয়নি টঙের দোকানদাররা। তাছাড়া শিক্ষার্থীরা টঙে ভাত বিক্রি চালুর দাবি করে আসলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা থাকায় ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও ভাত বিক্রি করতে পারেন না তারা। এছাড়া ক্যাম্পাস থেকে ক্লাসের ফাঁকে গেইটে খাবার খেতে যেতে হয় অনেককেই। আর এতে গুনতে হচ্ছে গাড়িভাড়া ও সময়।

এমতাবস্থায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি দূর করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআইসিটি ভবনের গ্রন্থাগারের নিচে চালু করা হয় এ ক্যাফে। যেখানে সেল্ফসার্ভিসে খাবার সংগ্রহ করতে হয় শিক্ষার্থীদের। কাউন্টার থেকে নির্ধারিত খাবারের স্লিপ নিয়ে সেটা ফুড কাউন্টারে জমা দেয়ার পর হাতে খাবার তুলে দেন ভেতরে থাকা সার্ভিসম্যান। কিন্তু এ ক্ষেত্রে প্রায়ই জমে উঠে ভিড়- ধরতে হয় লম্বা লাইন- অপেক্ষা করতে হয় খাবারের জন্য।

রয়েছে আসন সংকটও। দুপুরে ক্লাসের কান্তি আর পরের ক্লাস শুরু হয়ে যাওয়ার টেনশন নিয়ে খাবারের জন্য সবাই ভিড় জমায়, তখন অনেককেই অপেক্ষা করতে হয় অন্যের আসনের জন্য। দেখা যায় খাবার পেতে পেতে ক্লাসের সময় হয়ে গেছে।

ভোগান্তি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের ছাত্র রাহাত বলেন, “আমাদের এখানে ক্যাফে খোলা হয়েছে আমাদের ভোগান্তি রোধ করতে কিন্তু এখানে খাবারের দাম ও সার্ভিস নিয়ে প্রতিনিয়ত ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে আমাদের। খাবারের যা দাম তাতে চাহিদানুযায়ী খাবার দেয়না ক্যাফেটেরিয়া কর্তৃপক্ষ। এখানে খিচুরির যা দর তাতে তারা যা প্রদান করেন তার চেয়ে বাহিরে এইদামে আরো অনেক বেশি পাওয়া যায়। তাছাড়া মুরগী থেকে শুরু করে অন্যসব খাবারের দাম অনুযায়ী পরিমাণ কম প্রদান করা হয়। আমরা সিএসই সোসাইটি এ নিয়ে বৈঠক করে এদের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ জানাবো।”

ক্যাফেটেরিয়া পরিচালক নূরুল আজম বলেন, “আইআইসিটি কর্তৃপক্ষ আমাদের যেভাবে বলেছেন আমরা সেভাবেই সেবাপ্রদান করছি।  আসন সমস্যা নিয়ে আমরা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছি তবে ঈদের পর জায়গার পরিমাণ বৃদ্ধি করতে পারে বলে ধারণা করা যায়। তবে খাবারের দাম নির্ধারিত মূল্যতেই থাকবে।”

সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় খাবারের মূল্য ক্ষেত্রবিশেষ দ্বিগুণেরও বেশি এবং পরিমাণে অর্ধেকেরও কম। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য এত উচ্চমূল্যে খাবার পরিবেশনকে শুধুমাত্র উচ্চবিত্তের চাহিদা পূরণের মাধ্যম হিসেবে দেখছেন শিক্ষার্থীরা। মূল্য নির্ধারণে সংখ্যাগরিষ্ঠ মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করা হয়নি অভিযোগ করে অবিলম্বে দাম কমানোর ব্যাপারে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

Share via email

ক্যাটাগরি অনুযায়ী সংবাদ

এই সংবাদটি ১৪ আগস্ট ২০১৮ইং, মঙ্গলবার ২১টা ১৫মিনিটে শীর্ষ সংবাদ, সমস্যায় আক্রান্ত শাবিপ্রবি, সর্বশেষ ক্যাটাগরিতে প্রকাশিত হয়। এই সংবাদের মন্তব্যগুলি স্বয়ঙ্ক্রিয় ভাবে পেতে সাবস্ক্রাইব(RSS) করুন। আপনি নিজে মন্তব্য করতে চাইলে নিচের বক্সে লিখে প্রকাশ করুন।

Leave a Reply

300 x 250 ad code innerpage

Recent Entries

120 x 200 [Sitewide - Site Festoon]
প্রধান সম্পাদক: সৈয়দ মুক্তাদির আল সিয়াম, বার্তা সম্পাদক: আকিব হাসান মুন

প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার প্রধান সম্পাদকের। Copyright © 2013-2017, SUSTnews24.com | Hosting sponsored by KDevs.com