360 x 130 ad code [Sitewide - Site Header]

প্রধান ফটকে সমাবেশ, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার ঘোষণা

Share via email

ঢাকায় বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় এবং এর বিচারের দাবিতে আন্দোলনরত স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অর্ধ-সহস্রাধিক শিক্ষার্থী সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে মানববন্ধন করে। পরবর্তীতে একটি বিক্ষোভ মিছিল সিলেট শহরের আখালিয়া, মদিনা মার্কেট, পাঠানটুলা ঘুরে আবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

শাবিপ্রবি’র সম্মিলিত সাংষ্কৃতিক জোটের সমন্বয়ক জুয়েল রানার সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাস্ট সায়েন্স এ্যারেনার সাবেক সভাপতি রিফাত হায়দার, চোখ ফিল্ম সোসাইটির সভাপতি তুহিন ত্রিপুরা, শিক্ষার্থী কৈরম কামেশ্বরের, ছাত্রফ্রন্টের সদস্য তৌহিদুজ্জামন জুয়েল, সাস্ট-এসডির সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. আদনান প্রমুখ।

সমাবেশে সাস্ট সায়েন্স এ্যারেনার সাবেক সভাপতি রিফাত হায়দার বলেন, বুধবারও দাঁড়িয়ে থাকা এক শিক্ষার্থীর ওপর দিয়ে ট্রাক চলে গেলো সেই বিষয়টি সহ্য করা যাচ্ছিলো না। পরিবহণ শ্রমিক এবং মালিকদের কাছে আমাদের সাধারণ মানুষের জীবনের মূল্যটা আসলে কোথায়? এই স্বাধীন দেশে আমাদের যদি নিরাপদে চলাচলের ব্যবস্থা করে না দেয়া হয় তাহলে আমরা এর যোগ্য জবাব দিবো। আমাদের ছোট ভাই বোনদের ওপর যেভাবে হামলা করা হয়েছে, এই হামলা যদি আবারও চলে তাহলে আমরা আবারও মাঠে নামবো এবং আমরা দাবি আদায় করবো। ছোট ভাই-বোনরা একা না, আমরা তোমাদের পাশে আছি এবং তোমাদের ওপরে ভবিষ্যতে আর কোন ধরনের হামলা-নির্যাতন হয় তাহলে আমরা সারা দেশের ছাত্র সমাজ তার যোগ্য জবাব দিবো।

চোখ ফিল্ম সোসাইটির সভাপতি তুহিন ত্রিপুরা বলেন, শিক্ষার্থীরা যে ৯ দফা দাবি দিয়েছে আমরা তার সাথে একমত। সরকার যাতে তাদের এই দাবিগুলো মেনে নেয় সেটা আমরা প্রত্যাশা করবো। লাইসেন্সবিহীন, ফিটনেসবিহীন গাড়ী এবং চালকদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থার দাবি জানাচ্ছি সরকারের কাছি।

ছাত্রফ্রন্টের সদস্য তৌহিদুজ্জামন জুয়েল বলেন, আন্দোলনে অংশগ্রহণ করার কারণে স্কুল থেকে শিক্ষার্থীদেরকে টিসি দেয়া হচ্ছে। আপনারা সবাই বাচ্চাদের পাশে দাঁড়াবেন। যাদেরকে পুলিশ নির্যাতন করা হয়েছে তাদের পাশে দাঁড়াবেন। বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী মারা গেল। প্রতিবাদ করতে গেলে পুলিশ স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছোট ছোট শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালালো। আমরা এ ধরনের হামলার তীব্র নিন্দা জানাই, বিচার দাবি করছি।

গত ৩০ জুলাই ঢাকায় জাবালে নূর বাসের চাপায় শহীদ রামিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। নিহদের ঘটনার প্রতিবাদে ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামলে তাদের ওপর হামলা চালায় পুলিশ। এঘটনায় নৌমন্ত্রীর পদত্যাগও দাবি করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

Share via email

ক্যাটাগরি অনুযায়ী সংবাদ

এই সংবাদটি ২ আগস্ট ২০১৮ইং, বৃহস্পতিবার ২৩টা ১৭মিনিটে আন্দোলন, সর্বশেষ ক্যাটাগরিতে প্রকাশিত হয়। এই সংবাদের মন্তব্যগুলি স্বয়ঙ্ক্রিয় ভাবে পেতে সাবস্ক্রাইব(RSS) করুন। আপনি নিজে মন্তব্য করতে চাইলে নিচের বক্সে লিখে প্রকাশ করুন।

Leave a Reply

300 x 250 ad code innerpage

Recent Entries

120 x 200 [Sitewide - Site Festoon]
প্রধান সম্পাদক: সৈয়দ মুক্তাদির আল সিয়াম, বার্তা সম্পাদক: আকিব হাসান মুন

প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার প্রধান সম্পাদকের। Copyright © 2013-2017, SUSTnews24.com | Hosting sponsored by KDevs.com