360 x 130 ad code [Sitewide - Site Header]

শিক্ষার্থীদের জন্যই যদি বিশ্ববিদ্যালয় হয় তবে টঙে ভাত বিক্রি বন্ধ কার জন্য?

Share via email

“শিক্ষার্থীদের জন্যই বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষার্থীদের যেকোনো যৌক্তিক দাবি প্রশাসন নিঃসংকোচে পূরণ করবে।”
কথাটা আমাদের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মহোদয়ের উক্তি। গত ৩ এপ্রিল কিছু শিক্ষার্থীর রাত ১০ টা পর্যন্ত লাইব্রেরি খোলা রাখার দাবির প্রেক্ষিতে সন্ধ্যায় আকস্মিক লাইব্রেরি পরিদর্শন করেন তিনি। প্রথমেই ধন্যবাদ জানাই উনার এহেন তড়িৎ পদক্ষেপের জন্য। উনি যে ব্যাপারটা শুধু মুখেই বলেছেন এমনটা অবশ্যই না। উনি উনার কথা রাখার চেষ্টা করেন। এটি আমরা দেখেছি সব বিভাগে দ্রুততম সময়ে রেসাল্ট দেওয়া এবং সেশন জট কমিয়ে আনার প্রচেষ্টা দেখে। আক্ষরিক অর্থেই উনি সেটা প্রায় সম্ভব করে দেখিয়েছেন।

আজ কিন্তু আমি উপাচার্য মহোদয়ের কাছে একটা দাবি তুলে ধরবো। আপনি যেভাবে সেদিন লাইব্রেরীতে ছুটে গিয়েছিলেন আপনার শিক্ষার্থীদের কথা ভেবে, একইভাবে হুট করে একবার ক্যাফেটেরিয়ায় আসুন স্যার। দেখে যান, কীভাবে সেখানে শিক্ষার্থীদের গলাকাটা হয়, একবেলা চেখে দেখুন বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ার খাবারের মান।

ক্যাম্পাসের খাবার নিয়ে নতুন করে আর কিছু বলার নেই আমার। যা বলার এর আগে ৩২০ একর এবং অদ্ভুত আখনিখোরদের কষ্টশিরোনামে আমার আগের লেখাতেই বলে দিয়েছি শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগের কথা। সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে সাস্টনিউজ সহ আরও অনেক পত্রিকায়। গত অক্টোবরে বলা হয় দুটি বিশ্ববিদ্যালয় পর্যবেক্ষণ করে ক্যাফেটেরিয়ার ব্যাপারটা ঢেলে সাজানো হবে। ছয় মাসেও কি দুটি বিশ্ববিদ্যালয় দেখা হয়নি?

আমার প্রশ্নটা অন্যখানে। টং গুলোতে ভাত বিক্রি বন্ধ রাখা হয়েছে কার স্বার্থে? “টং গুলোতে ভাত বিক্রি হলে ক্ষতির মুখে পড়বে ক্যাফেটেরিয়া আর শিক্ষকদের ক্যান্টিন” এই যুক্তিতেই নাকি টং গুলোতে ভাত বিক্রি বন্ধ?

তারমানে প্রশাসন টঙ এ ভাত বিক্রি বন্ধ রেখে ক্যাফেটেরিয়ার ম্যানেজারের স্বার্থ হাসিল করছে? অথচ টঙে ভাত বিক্রি চালু করলে এমনিতেই ক্যাফেটেরিয়াসহ সব জায়গাতেই খাবারের দাম কমে যাবে। কম দামে ভাল খাবার খাওয়ানোর সুস্থ প্রতিযোগিতা শুরু হবে।

“শিক্ষার্থীদের জন্যই বিশ্ববিদ্যালয়”। ভাত খাওয়ার দাবিটা কতটা যৌক্তিক সেই বিচারের ভার আপনার হাতেই ন্যস্ত করলাম স্যার।

বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের শেষ প্রান্তে এসে হলেও অন্তত শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের খাওয়ার কষ্ট লাঘব হওয়া দেখে যেতে পারবো এতটুকু প্রত্যাশা করতেই পারি।

 

লেখক পরিচিতি: সৈয়দ মুক্তাদির আল সিয়াম

প্রধান সম্পাদক, সাস্টনিউজ টোয়েন্টি ফোর ডট কম

শিক্ষার্থীজেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগ (২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষ), শাবিপ্রবি

Share via email

ক্যাটাগরি অনুযায়ী সংবাদ

এই সংবাদটি ১৭ এপ্রিল ২০১৮ইং, মঙ্গলবার ২৩টা ৪৭মিনিটে খোলা কলম, সর্বশেষ ক্যাটাগরিতে প্রকাশিত হয়। এই সংবাদের মন্তব্যগুলি স্বয়ঙ্ক্রিয় ভাবে পেতে সাবস্ক্রাইব(RSS) করুন। আপনি নিজে মন্তব্য করতে চাইলে নিচের বক্সে লিখে প্রকাশ করুন।

Leave a Reply

300 x 250 ad code innerpage

Recent Entries

120 x 200 [Sitewide - Site Festoon]
প্রধান সম্পাদক: সৈয়দ মুক্তাদির আল সিয়াম, বার্তা সম্পাদক: আকিব হাসান মুন

প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার প্রধান সম্পাদকের। Copyright © 2013-2017, SUSTnews24.com | Hosting sponsored by KDevs.com