360 x 130 ad code [Sitewide - Site Header]

এফইএস বিভাগের “আন্তর্জাতিক বন দিবস-২০১৭” উদযাপন

Share via email

রিহা:

2

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বনবিদ্যা ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের আয়োজনে পালিত হল “আন্তর্জাতিক বন দিবস-২০১৭”।

দিনটি উদযাপনের লক্ষ্যে মঙ্গলবার দুপুর ১.০০টায় একটি র‍্যালির আয়োজন করা হয়। র‍্যালিতে বিভাগের সকল শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দের সাথে উপস্থিত ছিলেন বনবিদ্যা ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সকল শিক্ষকবৃন্দ। র‍্যালিটি যথাসময়ে শিক্ষাভবন-ই এর সামনে থেকে শুরু হয়ে এবং গোলচত্তর প্রদক্ষিণ করে শিক্ষাভবন-ই এর পেছনে কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ার পাশে এসে শেষ হয়। এসময় উপস্থিত সকলের উদ্দেশে একে একে বক্তব্য রাখেন বনবিদ্যা ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান ডঃ নারায়ন সাহা, অধ্যাপক ডঃ মোঃ বেলাল উদ্দিন এবং বিভাগীয় প্রধান ডঃ এ জেড এম মঞ্জুর রাশিদ।

অধ্যাপক ডঃ নারায়ন সাহা এসময় তার বক্তব্যে বলেন “এবারের আন্তর্জাতিক বন দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ‘বন প্রকৃতির শক্তির আধার’। বনভূমি হচ্ছে সকল প্রকারের প্রাণশক্তির আধার। বনভূমি যদি না থাকে তবে প্রানীকূল ধ্বংস হয়ে যাবে। বর্তমানে আমাদের দেশের বনভূমির আয়তন বিপুল পরিমাণে হ্রাস পেয়েছে। আমরা যেহেতু এ বিষয় নিয়ে পড়ালেখা ও গবেষণা করে থাকি সেহেতু আমাদের উচিৎ বনভূমি সংরক্ষণ এবং প্রসারের লক্ষ্যে নিজ নিজ স্থান হতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা এবং এ বিষয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করা। মূলত নিজেদের প্রয়োজনেই আমাদের বনভূমি সংরক্ষণ করা উচিৎ”।

অধ্যাপক ডঃ মোঃ বেলাল উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন “বনভূমি কেবল জ্বালানী শক্তির ভান্ডার নয়, আমাদের খাদ্যশৃঙ্খল পুরাটাই এই বনকে ঘিরে তৈরি। খাদ্যশৃঙ্খলের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল সূর্যালোক। আর গাছ এই সূর্যালোককে কাজে লাগিয়েই শর্করা উৎপন্ন করে। যা পরবর্তীতে খাদ্য শক্তি রূপে আমরা গ্রহণ করে থাকি। খাদ্যশৃঙ্খলের একটি উপাদানের অনুপস্থিতি আমাদের সম্পূর্ণ খাদ্য প্রক্রিয়াকে ক্ষতিগ্রস্থ করে দেয়। তাই খাদ্যশৃঙ্খলের ভারসাম্য বজায় রাখতে আমাদের সবার প্রথমে বনভূমি রক্ষা করতে হবে। সবার আগে বন। বনভূমি বাচলেই আমরা বঁচবো”।

সবশেষে বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় প্রধান ডঃ এ জেড এম মঞ্জুর রাশিদ। তিনি বলেন, “প্রতি বছর বিশ্বজুড়ে বন দিবসটি পালন করা হয় মূলত সবার সামনে বনভূমির গুরুত্বটা তুলে ধরার জন্য এবং বনভূমি রক্ষায় সবার মধ্যে সচেতনতা জাগ্রত করার জন্য। আমাদের বিভিন্ন ধরনের অসচেতনতামূলক কাজের মাধ্যমে প্রতিনিয়ত ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে আমাদের চারপাশের পরিবেশ আর তার ফলে ধ্বংস হচ্ছে বনভূমি। সভ্যতার বিকাশের সাথে সাথে উজাড় হচ্ছে প্রাকৃতিক বন-জঙ্গল। আমাদের সবার উচিৎ এই বনভূমি বৃদ্ধিতে সহায়তা করা। নিজের বাড়ির আশেপাশে বেশি বেশি গাছ লাগানো এবং সবুজ অরণ্যকে বাঁচিয়ে রাখা”।
unnamed
এসময় বিভাগের সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে শিক্ষাভবন-ই এর পেছনের প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে আজকের আয়োজনের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Share via email

ক্যাটাগরি অনুযায়ী সংবাদ

এই সংবাদটি ২২ মার্চ ২০১৭ইং, বুধবার ১টা ৩৫মিনিটে বন ও পরিবেশ বিজ্ঞান, বিভাগীয়, সর্বশেষ ক্যাটাগরিতে প্রকাশিত হয়। এই সংবাদের মন্তব্যগুলি স্বয়ঙ্ক্রিয় ভাবে পেতে সাবস্ক্রাইব(RSS) করুন। আপনি নিজে মন্তব্য করতে চাইলে নিচের বক্সে লিখে প্রকাশ করুন।

Leave a Reply

300 x 250 ad code innerpage

Recent Entries

120 x 200 [Sitewide - Site Festoon]
প্রধান সম্পাদক: সৈয়দ মুক্তাদির আল সিয়াম, বার্তা সম্পাদক: আকিব হাসান মুন

প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার প্রধান সম্পাদকের। Copyright © 2013-2017, SUSTnews24.com | Hosting sponsored by KDevs.com