360 x 130 ad code [Sitewide - Site Header]

এসো হে বৈশাখ || স্থাপত্য বিভাগের জমকালো বৈশাখ প্রস্তুতি

Share via email

তাসনিমা মুকিত রিহা:

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাভবন-ই এর সামনে যাওয়া মাত্রই খুব সহজেই উপলব্ধি করা যায় বৈশাখ এখন বাঙ্গালির  দরজায় কড়া নাড়ছে। এখন কেবল বর্ষবরণের অপেক্ষা। সিঁড়ি বেয়ে চারতলায় উঠলেই চোখে পরবে একদল তারুণ্যের ব্যস্ততা। এ যেন নতুন বছর ১৪২৩ এর বধূবরণের প্রস্তুতি। চলছে বিভাগের করিডোর ধোয়ামোছার কাজ। এরপর তাতে ফুটিয়ে তোলা হবে দক্ষ শিল্পীর হাতের ছোঁয়ায় রঙিন তুলির আঁচরে সুনিপুণ কারুকার্যের আল্পনা।

12966234_969151393163127_2023598900_n

বাংলা নতুন বছর ১৪২৩ কে বরণ করে নিতেই শাবিপ্রবির স্থাপত্য বিভাগের শিক্ষার্থীরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। মাঝে চার-পাঁচ বছর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজনে অংশগ্রহণ করলেও এইবার স্থাপত্য বিভাগ এই আয়োজনের দায়িত্ব গ্রহণ করে নি। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মঙ্গল শোভাযাত্রার জন্য ৫০-৬০ টি মুখোশ তৈরি করে দিচ্ছেন তারা। স্থাপত্য বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তুহিন হামিদ এর সাথে কথা বলে জানা যায় এবারে সম্পূর্ণ নিজস্ব বিভাগের সোসাইটির উদ্যোগে পহেলা বৈশাখ উদযাপন করতে যাচ্ছে স্থাপত্য বিভাগ। তাদের এ আয়জনে টাইটেল স্পন্সর হিসেবে তাদের সাথে থাকছেন বার্জার পেইন্ট। বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নেয়ার লক্ষেই গত ৯ই এপ্রিল থেকে বিভাগে বৈশাখ প্রস্তুতি শুরু হয়। এবারই প্রথম এত কম সময়ের মধ্যে বৈশাখ উদযাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। এবারের বৈশাখ উদযাপনে স্থাপত্য বিভাগের আনুষ্ঠানিকতা মূলত শুরু হবে ১৩ই এপ্রিল সন্ধ্যা ৬ টায় চৈত্র সংক্রান্তি উপলক্ষে ফানুস উড়ানোর মধ্য দিয়ে। পহেলা বৈশাখের নানা আয়োজনের মধ্যে থাকছে সকাল ১১ টায় মঙ্গল শোভাযাত্রা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক এবারের মঙ্গল শোভাযাত্রায় থাকছে না কোন মাস্কট প্রদর্শনী। তবে থাকছে ৫০ টির মত নানা রঙের এবং নানা ঢঙের মুখোশ প্রদর্শনী। সাথে থাকবে ঢুলির ঢোলের ছন্দ। সোসাইটির পক্ষ থেকে শিক্ষাভবন-ই কে ঘিরে থাকছে স্টল প্রদর্শনী। দুপুর ১ টায় আরম্ভ হবে বায়স্কোপ প্রদর্শনী। এরপর বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিয়ে থাকছে পান্তা-ফিস্ট। সন্ধায় থাকছে ঐতিহ্যবাহী পুতুলনাচ এবং সবশেষে থাকছে মনোমুগ্ধকর বাউল সন্ধ্যা।

12998648_1106513149390230_1008389486119306886_nএই আয়োজনকে সামনে রেখে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৮টা পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে প্রস্তুতি পর্ব। যেখানে স্থাপত্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীরাও। স্থাপত্য বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সুষ্ময় অংকন এই বিষয়ে বলেন “সিনিয়রদের তত্ত্বাবধায়নে কাজ করতে অসম্ভব ভালো লাগছে। ক্লাসের চাপ আছে তবে নিজের দেশীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে হৃদয়ে ধারণ করে কাজ করার আনন্দই অন্যরকম। সেই আনন্দের কাছে ক্লান্তি নিতান্তই তুচ্ছ বিষয়”।

12966357_969151396496460_299368623_nবিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী হিমেল তার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন “আগের বছর কাজের অনেক চাপ ছিল। এই বছর তেমন চাপ নেই। ছোট ভাই-বোনরাই সব কাজ করছে। আমি শুধু দিক নির্দেশনা দিচ্ছি আর গতবছরের কাজের চাপকে অনেক বেশি মিস করছি।”

স্থাপত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব মোঃ মোস্তাফিজুর রাহমান সার্বিক প্রস্তুতি প্রসঙ্গে বলেন, “বছর ঘুরে পহেলা বৈশাখ আসে এবং প্রতিবার স্থাপত্য বিভাগ এই বর্ষবরণকে উদ্দেশ্য করে বর্ণাঢ্য আয়োজনে মেতে উঠে। এইবারও শিক্ষার্থীরা বর্ষবরণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রমে কোন রকম ব্যাঘাত ঘটছে না। ক্লাস-পরীক্ষা অব্যাহত থাকছে।”

পুরাতনের বিদায়ে সকল অশুভকে পেছনে ফেলে নতুন স্বপ্ন এবং নতুন উদ্যমে সামনে এগিয়ে যাওয়ার মধ্য দিয়েই শুভ আগমন ঘটুক নতুন বছর ১৪২৩। এমনটাই প্রত্যাশা সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং কর্মচারীবৃন্দের। সর্বোপরি শাবিপ্রবি ক্যাম্পাসকে একটি জমকালো এবং অন্যরকম একটি বৈশাখ উপহার দেয়ার জন্য ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগের শিক্ষার্থীবৃন্দ।

Share via email

ক্যাটাগরি অনুযায়ী সংবাদ

এই সংবাদটি ১৩ এপ্রিল ২০১৬ইং, বুধবার ১০টা ১০মিনিটে উদযাপন, পহেলা বৈশাখ, বিভাগীয়, শীর্ষ সংবাদ, সর্বশেষ, স্থাপত্য (ARC) ক্যাটাগরিতে প্রকাশিত হয়। এই সংবাদের মন্তব্যগুলি স্বয়ঙ্ক্রিয় ভাবে পেতে সাবস্ক্রাইব(RSS) করুন। আপনি নিজে মন্তব্য করতে চাইলে নিচের বক্সে লিখে প্রকাশ করুন।

মন্তব্যসমূহ

120 x 200 [Sitewide - Site Festoon]
প্রধান সম্পাদক: সৈয়দ মুক্তাদির আল সিয়াম, বার্তা সম্পাদক: আকিব হাসান মুন

প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার প্রধান সম্পাদকের। Copyright © 2013-2017, SUSTnews24.com | Hosting sponsored by KDevs.com